Register Now

Login


Lost Password

Lost your password? Please enter your email address. You will receive a link and will create a new password via email.

Login


Register Now

Welcome to Our Site. Please register to get amazing features .

ফোর্বস মতে ২০২০ সালে সাফল্য পেতে কি কি দক্ষতা (স্কীল) প্রয়োজন

২০১৯ এর প্রান্তিক মুহূর্তে আর ২০২০ এর হাতছানি দিয়ে আহবান! একজন প্রফেশনাল/চাকরিজীবী হয়ে খেয়াল করেছেন কি গত ৪-৫ বছরে আপনার জব সেক্টরে কি ধরনের পরিবর্তন ঘটে চলেছে প্রতি মুহূর্তে আপনার চারপাশে। এবং এই পরিবর্তনের সাথে আপনার ক্যারিয়ার কিভাবে প্রভাবিত হচ্ছে ? আপনি কি ভবিষ্যত জবের জন্য নিজেকে প্রস্তূত ভাবতেছেন কিংবা কি ধরনের জব সামনে থাকবে সে সম্পর্কে নিজেকে তৈরী করতেছেন। আমরা আজকের আর্টিকেলে দেখবো সামনে কোন স্কিলসেট গুলো দরকার জব মার্কেটে টিকে থাকার জন্য।

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম সম্প্রতি একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে যে কোন ১০ টি স্কিল ২০২০ এ আপনাকে এগিয়ে রাখবে জব সেক্টরে :

১) জটিল সমস্যা সমাধানের যোগ্যতা

২) ক্রিটিক্যাল থিংকিং

৩) ক্রিয়েটিভিটি

৪) মানুষকে ম্যানেজ করা

৫) মানুষের সাথে সমন্বয় করা

৬) ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স

৭) বিচার এবং ডিসিশন নেওয়ার সামর্থ্য

৮) সেবা দেওয়া

৯) নেগোশিয়েশন

১০) মানসিক শক্তি

উপরের ১০ টি স্কিল অবশ্যই আবশ্যক বর্তমান সময়ের সাপেক্ষে। কিন্তু এই স্কিল গুলো কি সত্যিই যথেষ্ট আমাদের জব মার্কেট এর চাহিদা অনুযায়ী !

১) ক্রিয়েটিভ: অন্যের থেকে আলাদা, চিন্তাশক্তি প্রখর, স্বশাসিত।

২) স্কীলড: নতুন টেকনোলজি এর সাথে আপডেট থাকা, প্রতিভার স্বাক্ষর রাখা, প্রফেশনাল, সঠিক ধারণা রাখা নিজের কাজ সম্পর্কে।

৩) কাজের পদ্ধতি: পরিস্থিতির সাথে খাপ খাইতে পারা, নিয়মতান্ত্রিক, সেলফ ম্যানেজড।

৪) রোবটিক: এলগোরিদমিক, কম্পিউটারে দক্ষতা, ইফিসিয়েন্ট।

উপরের পয়েন্টগুলো মাধ্যমে আপনি কোনো ক্রিয়েটিভ কাজে ফোকাস হতে পারবেন। প্রতিটি প্রফেশনাল অনেকটায় ক্রিয়েটিভ হতে পারে। যখন সে কাজ করে নিজের ওয়ার্ল্ডে , মূলত সে ঐ কাজের আর্ট তৈরী করতে পারে। Neumeier বলেন, সব সময় শিখার মানসিকতা থাকতে হবে এটা খুব  গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া , অন্যরা আপনার কাজের ডুপ্লিকেট অথবা অনুরূপ করে ফেলবে। আপনি যদি আপনার প্রোডাক্টের জন্য ইউনিক হতে চান , তাহলে আপনাকে শূন্য থেকেই প্রোডাক্টটি আপনাকে তৈরী করতে হবে

আপনি হয়তো ভাবতে শুরু করেছেন আপনার হয়তো উল্লেখিত ১০ টি স্কিল চেয়ে বেশি স্কিল লাগবে ! Alvin Toffler একবার বলেছিলেন, ২১ শতকের নিরক্ষতা কখনোই পড়ালেখা না জানা হবে না,  তারাই নিরক্ষর হবে যারা শিখতে পারছে না, শিখে না , নতুন করে আবার স্টাডি না করে।

একটি উদহারণ দিলে ব্যাপারটা স্পষ্ট হয়ে যাবে, মোবাইল ফোনের শুরুর দিকে মানুষ শুধু কমিউনিকেশন এর উদ্দেশ্যে ব্যবহার হতো , কিন্তু মানুষ ডিভাইসটির নতুন করে ব্যবহার শিখে নতুন অনেক প্রব্লেমের সমাধান খুঁজে পাচ্ছে।

কাজের ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই নতুন স্কিল গুলোতে মানিয়ে নিতে হবে। এবং পাশাপাশি নতুন স্কিলগুলোও শিখতে হবে আপনার ভবিষৎ জবের জন্য। আরো কিছু স্কিল আপনাকে ২০২০ সালে সফল করে তুলবে –

১) কিভাবে শিখতে হয় তা শেখা

দেখুন স্কিল প্রায়ই পরিবর্তন হয়ে যাচ্ছে , কাজেই আপনাকে শিখতে হবে কিভাবে আসলে শেখা যাই।  যেমন – udemy, coursera আপনার জন্য উপযুক্ত জায়গা হতে পারে শেখার জন্য।

২)দ্রুত এবং বুদ্ধিমত্তার সাথে পড়ুন

কখনোই পড়া বন্ধ করবেন না।  নিয়মিত পড়া আপনার জীবনে পার্ট হতে হবে , নিয়মিত সময় করে বই পড়ুন।

৩)নোট নেওয়া

নোট নেওয়াও শেখার একটি মাধ্যম। নোট নেওয়ার মধ্যে আর্ট কাজ করে। এটিও একসময় লার্নিং এর ক্ষেত্রে সরাসরি ভূমিকা পালন করবে।

৪) তথ্য এনালাইসিস

যখন আপনি বিস্তারিত এবং ভালোভাবে নোট নিবেন , সেগুলো রিভিউ করে বড় আইডিয়া এবং গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে পারেন।

৫) প্যাটার্ন এবং ট্রেন্ড এনালাইসিস

আপনি যখন বিভিন্ন বই পড়বেন সেখান থেকে প্রাপ্ত আইডিয়া গুলো কপি পেস্ট করে প্যাটার্ন অনুযায়ী সাজিয়ে ফেলুন , দেখুননা বের হয়ে আসবে এমন কিছু যা আপনি চিন্তাও করেন নি হয়তো না.

৬) টেকনোলজি বুঝুন

টেকনোলজি এখন সবচেয়ে দ্রুত পরিবর্তন হয়ে যাচ্ছে , সেক্ষেত্রে আপনাকে আগাম টেকনোলজি ট্রেন্ড বুঝতে হবে। মাঝে মাঝে এক্ষেত্রে বই না পরে লেটেস্ট জার্নাল আর্টিকেল এবং টেক ব্লগ গুলো দেখতে পারেন।

About Ask me anything


Follow Me

Leave a reply

Captcha Click on image to update the captcha .